Saturday, May 28, 2022
HomeClass VIClass 6 Model Activity Task GeographyModel Activity Task Class 6 Geography Part 7- পরিবেশ ও ভূগোল উত্তর...

Model Activity Task Class 6 Geography Part 7- পরিবেশ ও ভূগোল উত্তর (ষষ্ঠ শ্রেনীর সমস্ত বিষয়)

Model Activity Task Class 6 Geography Part 7- ভূগোল উত্তর (ষষ্ঠ শ্রেনীর সমস্ত বিষয়)

Contents

Model Activity Task

Class 6 (ষষ্ঠ শ্রেনী) 

Sub:- Geography (পরিবেশ ও ভূগোল)

Part 7

Model Activity Task Class 6 Geography Part 7
Model Activity Task Class 6 Geography Part 7

পঞ্চম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4296″]

ষষ্ঠ শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4401″]

Model Activity Task Class 6 Geography Part 7

১. বিকল্পগুলি থেকে ঠিক উত্তরটি নির্বাচন করে লেখো :

১.১ ঠিক জোড়াটি নির্বাচন করো—

ক) এক্সোস্মিয়ার – মেঘের উপস্থিতি

খ) ভূত্বক – পরিচলন স্রোত

গ) সমুদ্রের জল- পৃথিবীর মোট জলের তিন শতাংশ

ঘ) বিশ্ব উন্নায়ন – মরুভূমির প্রসার

উত্তর : ঘ) বিশ্ব উন্নায়ন – মরুভূমির প্রসার

১.২ আন্টার্কটিকার স্থায়ী বাসিন্দা পেঙ্গুইনের প্রধান খাদ্য হলো—

ক) সীল

খ) তিমি

গ) ক্রিল

ঘ) অ্যালবাট্রস

উত্তর : গ) ক্রিল

১.৩ সূর্যরশ্মির যে অংশ পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলকে উত্তপ্ত না করে সরাসরি মহাশূন্যে ফিরে যায় তাকে বলে—

ক) পার্থিব বিকিরণ

খ) কার্যকরী সৌর বিকিরণ

গ) ইনসোলেশন

ঘ) অ্যালবেডো

উত্তর : ঘ) অ্যালবেডো

১.৪ ক্রান্তীয় পর্ণমোচী উদ্ভিদের একটি উদাহরণ হলো—

ক) ফার

খ) ক্যাকটাস

গ) পলাশ

ঘ) গরান

উত্তর : গ) পলাশ

Model Activity Task Class 6 Geography Part 7

২. একটি বা দুটি শব্দে উত্তর দাও :

২.১ পৃথিবীর বাইরের শক্ত আবরণ কী নামে পরিচিত?

উত্তর : পৃথিবীর বাইরের শক্ত আবরণ ভূত্বক নামে পরিচিত ।

২.২ ‘আন্টার্কটিকা’ শব্দটির অর্থ কী?

উত্তর : ‘আন্টার্কটিকা’ শব্দটির অর্থ হলো ‘উত্তরের বিপরীত’ ।

২.৩ কোন গোলার্ধে সমোষ্ণরেখাগুলি পরস্পর থেকে দূরে অবস্থান করে?

উত্তর : দক্ষিন গোলার্ধে সমোষ্ণরেখাগুলি পরস্পর থেকে দূরে অবস্থান করে।

২.৪ ভারতের মূল ভূখণ্ডের দক্ষিণতম বিন্দু কোনটি?

উত্তর : ভারতের মূল ভূখণ্ডের দক্ষিণতম বিন্দু ‘কন্যাকুমারিকা’।

পঞ্চম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4296″]

ষষ্ঠ শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4401″]

Model Activity Task Class 6 Geography Part 7

৩. সংক্ষিপ্ত উত্তর দাও :

৩.১ ‘বায়ুমণ্ডলই পৃথিবীতে জীবনধারণের অনুকূল তাপমাত্রা বজায় রাখে – বক্তব্যটির যথার্থতা বিচার করো।

উত্তর : সূর্যের তাপে পৃথিবী উত্তপ্ত হয় আর দিন ও রাত মিলিয়ে ঐ তাপ ধীরে ধীরে বেরিয়ে যায়। বায়ুমণ্ডল না থাকলে সূর্যাস্তের পর হঠাৎ ভীষণ ঠান্ডা আর সূর্যোদয়ের পর হঠাৎ প্রবল গরম হয়ে যেত পৃথিবী।ফলে জীবজগৎ কঠিন সমস্যার সম্মুখীন হতো । বায়ুমণ্ডলের জন্যই পৃথিবীতে জীবনধারণের অনুকূল তাপমাত্রা বজায় থাকে।

৩.২ আন্টার্কটিকার জলবায়ুর দুটি বৈশিষ্ট্য উল্লেখ করো।

উত্তর : আন্টার্কটিকার জলবায়ুর দুটি বৈশিষ্ট্য হলো –

১.এই মহাদেশ পৃথিবীর শীতলতম অঞ্চল। সারাবছরই হিমশীতল আবহাওয়া, কনকনে ঠান্ডা বাতাস আর তুষারঝড় চলে।

২.শীতকালে তাপমাত্রা ৪০° সেন্টিগ্রেড থেকে-৭৫° সেন্টিগ্রেড পর্যন্ত নেমে যায়। এই মহাদেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৮৯.২° সেন্টিগ্রেড।

৪. নীচের প্রশ্নটির উত্তর দাও :

৪.১ পৃথিবীর তাপমণ্ডলের একটি চিহ্নিত চিত্র অঙ্কন করো।

উত্তর :

Model Activity Task Class 6 Geography Part 7

৫. নীচের প্রশ্নটির উত্তর দাও :

৫.১ কী কী উপায়ে মাটি সংরক্ষণ করা যেতে পারে বলে তুমি মনে করো?

উত্তর : মৃত্তিকা সংরক্ষণের উপায় গুলি হলো নিম্নরূপ-

বনভূমি সৃষ্টি:

 উদ্ভিদের শিকড় এক দিকে যেমন মৃত্তিকাকে শক্ত করে আঁকড়ে ধরে থাকে, অন্যদিকে বৃষ্টির ফোঁটার আঘাত থেকে মৃত্তিকাকে রক্ষা করে মৃত্তিকা ক্ষয় নিবারন করে।এসব কারণে বনভূমি নষ্ট না করে প্রয়োজন মতো নতুন বনভূমি সৃষ্টি করে মৃত্তিকা ক্ষয় প্রতিহত করতে সক্ষম হয়।

শস্যাবর্তন:

 একই জমিতে পর্যায় ক্রমে বিভিন্ন ফসলের চাষ করলে একদিকে যেমন মৃত্তিকার উর্বরতা বজায় থাকে, ঠিক তেমনি সারা বছর ধরে ফসল উৎপাদন করা হয় বলে জমি কখনো খালি পড়ে থাকে না, তাই বৃষ্টি ও বায়ুর দ্বারা মৃত্তিকা ক্ষয়ের পরিমান কমে যায়।

পশুচারন নিয়ন্ত্রন :

 পশুচারন নিয়ন্ত্রনের মাধ্যমে মৃত্তিকা ক্ষয় কমানো সম্ভব। কারণ পশুচারন কম হলে মৃত্তিকায় তৃণ ও অন্যান্য উদ্ভিদের আবরন বেড়ে যায়, পশুর পায়ের আঘাতে মৃত্তিকা আলগা হওয়ার পরিমান হ্রাস পায়। এভাবে নিয়ন্ত্রিত পশুচারন মৃত্তিকা ক্ষয় কে নিয়ন্ত্রন করতে সাহায্য করে।

নদীর পাড় ভাঙন রোধ :

 নদীর পাড় ভাঙন প্রতিরোধ করার জন্য নদীর পাড় বরাবর কংক্রিটের বাঁধ নির্মান, বোল্ডার দ্বারা পাড় বাঁধন এবং অনেক সময় বালির বস্তা ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

ঝুমচাষ নিষিদ্ধ করন :

 পাহাড়ি অঞ্চলে বন জঙ্গল কেটে পরিষ্কার করে প্রাচীন পদ্ধতিতে চাষবাস কে ঝুমচাষ বলে। এই ক্ষেত্রে বনভূমি কেটে চাষ করা হয় বলে ভূমি উন্মুক্ত হয়ে বায়ু ও জলপ্রবাহ দ্বারা ক্ষয় হয়ে যায়। তাই যে সব অঞ্চলে এই ঝুমচাষ করা হয় তা বন্ধ করতে পারলে ভূমিক্ষয়ের পরিমান হ্রাস পায়।

 

Model Activity Task Class 6 Geography Part 7

পঞ্চম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4296″]

ষষ্ঠ শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4401″]

সপ্তম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4403″]

অষ্টম শ্রেনীর সমস্ত বিষয়

[ninja_tables id=”4404″]

দশম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4297″]

নবম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4432″]

 

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

FansLike
FollowersFollow
0FollowersFollow
FollowersFollow
SubscribersSubscribe
- Advertisment -

Most Popular

State Wise Govt Jobs In India