Monday, September 26, 2022
HomeClass VIClass 6 Model Activity Task BengaliModel Activity Task Class 6 Bengali Part 7- বাংলা (ষষ্ঠ শ্রেনীর সমস্ত...

Model Activity Task Class 6 Bengali Part 7- বাংলা (ষষ্ঠ শ্রেনীর সমস্ত বিষয়)

Model Activity Task Class 7 Bengali Part 7- বাংলা (ষষ্ঠ শ্রেনীর সমস্ত বিষয়)

Contents

Model Activity Task

Class 6 (ষষ্ঠ শ্রেনী)

Sub:- Bengali (বাংলা) 

Part 7

Model Activity Task Class 6 Bengali Part 7

 

Model Activity Task Class 6 Bengali Part 7
Model Activity Task Class 6 Bengali Part 7

সপ্তম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4403″]

অষ্টম শ্রেনীর সমস্ত বিষয়

[ninja_tables id=”4404″]

Model Activity Task Class 6 Bengali Part 7

১. নীচের প্রশ্নগুলির উত্তর দাও : ৩x৫=১৫

১.১ কোথাও বা চাষির ঘরের বউরা করে ক্ষেত্ৰব্রত। – ‘ক্ষেত্রব্রত’ কীভাবে পালিত হয় মরশুমের দিনে’ গদ্যাংশ অনুসরণে লেখাে।
উত্তরঃ সুভাষ মুখােপাধ্যায় রচিত ‘মরশুমের দিনে’ পাঠ্যাংশে দেখি চাষির ঘরের বউরা মূলত ক্ষেত্র ব্রত পালন করে থাকে। এর জন্য বাড়ির কাছাকাছি কোনাে খােলা জমিকে বেছে নেয়। তারা নিজেরাই ঘট প্রতিষ্ঠা করে এবং তার গায়ে সিঁদুর-পুত্তলি এঁকে ঘটের জলে আমের পল্লব ডুবিয়ে দেয়। তাদের মধ্যে কোন বয়স্কা মহিলাকে মূলব্রতী করা হয়। এরপর ব্রতীর দল হাতে ফুল ও দূর্বা নিয়ে মূল ব্রতীর মুখ থেকে ব্রথের কথা শােনে।
 সন্ধ্যার সময় উলু দিয়ে ব্রত সমাপ্ত হয়। ব্রত শেষের পরে চলে চিনি,গুড়মুড়ি,খই ও দুই সহযােগে ফলার গ্রহণ পর্ব। ক্ষেত্রত পালনের দিন ভােরে ছেলের ব্রত পালনে দল জমি কর্ষণ করে বীজ ধান বপন করে এবং জল ঢালে। এভাবেই ক্ষেত্ৰব্ৰত পালিত হয়ে থাকে।
Model Activity Task Class 6 Bengali Part 7
১.২ দিবসরাত্রি নূতন যাত্রী / নিত্য নাটের খেলা।’ –উদ্ধৃতাংশের তাৎপর্য বিশ্লেষণ করো।

উত্তরঃ দুঃখবাদী কবি যতীন্দ্রনাথ সেনগুপ্তের লেখা হাট কবিতাটি একটি রূপকধর্মী কবিতা।  সপ্তাহের কোনো নির্দিষ্ট দিনে গ্রাম থেকে একটু দূরে নির্দিষ্ট জায়গায় হাট বসে। সেখানে পণ্যদ্রব্য পরখ করে কেনাবেচা চলে। হাট এখানে মানবজীবনের প্রতীক।বাস্তবের হাটের ভাঙা-গড়ার মাধ্যমে কবি মূলত মানুষের জন্মমৃত্যুর কথা বলতে চেয়েছেন।আমাদের এই জীবনে বহু মানুষের সঙ্গে পরিচিতি, যোগাযোগ, লেনদেন ঘটে। জীবন ফুরালে সবাইকে বিদায় নিতে হয় । হাটের লোকেদের মতো এই পৃথিবীর মানুষরাও কেউ জীবনে সফল হয়, কেউ-বা বিফলতার মধ্যেই জীবন শেষ করে।

১.৩ ‘মূলত জ্যামিতিক আকার – আশ্রিত বর্ণ সমাবেশেই রচিত হয় সাঁওতালি দেয়ালচিত্র। বক্তব্যটিকে ‘মাটির ঘরে দেয়ালচিত্র রচনায় লেখক কীভাবে ব্যাখ্যা করেছেন?
উত্তরঃ তপন কর তাঁর ‘মাটির ঘরে দেয়ালচিত্র গদ্যাংশে জানিয়েছেন- সাঁওতালরা মূলত জ্যামিতিক আকার আশ্রিত বর্ণ সমাবেশেই দেয়ালচিত্র করে থাকে।
লেখক জানিয়েছেন- সাঁওতালরা নানান জ্যামিতি সমান্তরাল রেখা, চতুষ্কোণ, ত্রিভুজকে তাদের 8িf% হিসাবে ব্যবহার করে। তারা কখনও চতুষ্কোণ-এর ভিতরে চিত্রের বিষয় চতুষ্কোণ বসিয়ে নকশা করে, আবার কখনাে ত্রিভুজের ভেতর ত্রিভুজ বসিয়ে নিত্যনতুন সুন্দর চিত্র অঙ্কন করে। তাদের গৃহগুলির চারপাশ ঘিরে থাকা বেদিটিকেও তারা কালাে, গেরুয়া রং এর সমান্তরাল রেখায় সুন্দর করে তােলে। আবার কখনও ংয়ের রেখা দিয়ে চতুস্কোন- ত্রিভুজ আদিবাসী সম্প্রদায় ঘরের ঘরের দেওয়ালের উপরে সাদা আকাশী গেরুয়া বা হলদে রংয়ের রেখা দিয়ে চতুস্কোন- ত্রিভুজ একেও ঘর সাজায় ।এভাবে মাটি থেকে ছয় ফুট উচ্চতা পর্যন্ত অঙ্কন নানান আকার- বর্ণ সহযােগে সাঁওতালরা দেয়াল চিত্র অঙ্কন করে।
Model Activity Task Class 6 Bengali Part 7

সপ্তম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4403″]

অষ্টম শ্রেনীর সমস্ত বিষয়

[ninja_tables id=”4404″]

Model Activity Task Class 6 Bengali Part 7
১.৪ ‘…সে বাড়ির সেই মানুষদের একটি বন্ধু ফাঁকি দিয়ে চলে গেল— সেই ঝড়ের রাতে।” উদ্ধৃতিটির আলোকে ‘ফাঁকি’ গল্পের নামকরণের সার্থকতা প্রতিপন্ন করো।

উত্তরঃ আলোচ্য অংশ টি অন্যতম সাহিত্যিক রাজকিশোর পট্টনায়ক এর লেখা ‘ফাঁকি’ গল্প থেকে নেওয়া হয়েছে।বহু বছর আম গাছটি সমস্ত বাধাবিপত্তি কাটিয়ে অটুটভাবে দাঁড়িয়েছিল। কিন্তু সবার চোখের আড়ালে কবে যে উইপোকা তাকে কুরে কুরে খেয়ে দুর্বল করে দিয়েছে, তা পরিবারের কেউই বুঝতে পারেনি। তাই আষাঢ় মাসের রাতের এক তুমুল ঝড়ে গাছটি হঠাৎ করেই ভেঙে পড়ে। গাছটির সঙ্গে বাড়ির সকলের আত্মীয়তা গড়ে উঠেছিল। তাই এক ঝড়জলের রাত্রে তার মৃত্যুতে বাড়ির সকলের মনে হল এক পরম বন্ধু যেন হঠাৎ ফাঁকি দিয়ে চলে গেছে।পরম আত্মীয়ের এইরকম হঠাৎ চলে যাওয়াকে মানুষ বলে ফাঁকি দিয়ে চলে যাওয়া’। এক্ষেত্রেও আম গাছটির মৃত্যু গোপালদের কাছে পরিবারের কোনো প্রিয় সদস্য বা আত্মীয়ের ফাঁকি দিয়ে চলে যাওয়ার মতোই মনে হয়েছে। সেই কারণেই বলা যায়, গল্পটির নামকরণ যথাযথ ও সুপ্রযুক্ত হয়েছে।

১.৫ ‘খলখল করে হেসে উঠল জল, ঢেউ তুলে.. —হেসে উঠে জল কী বলল?
উত্তরঃ দক্ষিণারঞ্জন মিত্র মজুমদার রচিত ‘আশীর্বাদ গল্পে আমরা দেখি পিঁপড়ের বিপদসংকুল অবস্থায় পাতা ও বৃষ্টির মতাে জলও তাকে প্রবােধ দিয়েছে। বৃষ্টি ও গাছের পাতা বর্ষায় একত্রিত হয়ে আনন্দে মেতে ওঠে এবং গান গেয়ে বেড়ায়। জলও ঢেউ তুলে হাসতে-হাসতে পিপড়ের মনে সাহস সঞ্চার করে। তাই জলও গান গেয়ে ওঠে সে ঘাসকে বর্ষার জলে ডুবিয়ে দেয় কাদায় লুটিয়ে দেয়। সেই ঘাসই আবার শরতের সময় মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে তার কাশফুলের সৌন্দর্যে সকলকে বিমােহিত করে। এভাবেই জলের কথা,হাসির মধ্য দিয়ে বােঝানাে হয়েছে ঘাসের এই জীবন সংগ্রাম হলাে জীবনকে নতুন ভাবে দেখার অনুপ্রেরণা। আসলে সবার জীবনে আনন্দ- সুখ দুঃখের অনুভূতি চক্রাকারে আবর্তিত হয়। আলােচ্য গল্পটিতে পিঁপড়ের প্রতি জলের সেই আশ্বাসবাণীই ধ্বনিত হয়েছে।
Model Activity Task Class 6 Bengali Part 7

২.  নির্দেশ অনুসারে নীচের ব্যাকরণগত প্রশ্নগুলির উত্তর দাও :

২.১  নীচের শব্দবিভক্তিগুলির প্রতিটির আগে একটি করে উপযুক্ত শব্দ জুড়ে পদ বানাও :
২.১.১  দিগ :- তাহাদিগ 
২.১.২  রা :- বাচ্চারা 
২.১.৩  গুলি :- দিনগুলি 
২.২  নীচের শব্দগুলির আগে দুটি করে উপসর্গ বসিয়ে আলাদা আলাদা শব্দ তৈরি করো :

২.২.১  দেশ :- প্রদেশ, বিদেশ 
২.২.২  কাশ :- অবকাশ, বিকাশ 

অন্যান্য বিষয়ের উত্তরের জন্য ঃ

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক class 6 বাংলা উত্তর part 7

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক class 6 ইংরেজি উত্তর part 7

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক class 6 ইতিহাস উত্তর part 7

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক class 6 ভূগোল উত্তর part 7

Model Activity Task Class 6 Bengali Part 7

পঞ্চম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4296″]

ষষ্ঠ শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4401″]

সপ্তম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4403″]

অষ্টম শ্রেনীর সমস্ত বিষয়

[ninja_tables id=”4404″]

দশম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4297″]

নবম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4432″]

Model Activity Task Class 6 Bengali Part 7
RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

FansLike
FollowersFollow
0FollowersFollow
FollowersFollow
SubscribersSubscribe
- Advertisment -

Most Popular

State Wise Govt Jobs In India