Wednesday, May 25, 2022
HomeClass VIIIClass 8 Model Activity Task HistoryClass 8 Model Activity Task History Part 6- ইতিহাস (অষ্টম শ্রেনীর সমস্ত...

Class 8 Model Activity Task History Part 6- ইতিহাস (অষ্টম শ্রেনীর সমস্ত বিষয়)

Class 8 Model Activity Task History Part 6- ইতিহাস (অষ্টম শ্রেনীর সমস্ত বিষয়)

Model Activity Task

Class 8

Sub:- History(ইতিহাস )

Part 6

Class 8 Model Activity Task History Part 6
Class 8 Model Activity Task History Part 6

অষ্টম শ্রেনীর সমস্ত বিষয়

[ninja_tables id=”4404″]

দশম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4297″]

১. সঠিক তথ্য দিয়ে নীচের ছকটি পূরণ করো :  ১ x ৬ = ৬

 প্রতিষ্ঠান   প্রতিষ্ঠাতা  সময়কাল
জমিদার সভা 
ভারত সভা 
ইন্ডিয়ান লিগ 

 

উত্তর –
 
প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠাতা সময়কাল
জমিদার সভা রাজা রাধাকান্ত দেব, দ্বারকানাথ ঠাকুর এবং প্রসন্নকু মার ঠাকুর। ১৮০৮ খ্রিস্টাব্দ
ভারত সভা সুরেন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়,শি বনাথ শাস্ত্রী এবং আনন্দমোহন বসু ১৮৭৬ খ্রিস্টাব্দ
ইন্ডিয়ান লিগ শিশির কুমার ঘোষ এবং হেমন্ত কমার ঘোষ। ১৮৭৫ খ্রিস্টাব্দ

২. সত্য বা মিথ্যা নির্ণয় করে

২.১. ১৮৭৬ খ্রিস্টাব্দে লর্ড নর্থব্রুক জারি করেন নাট্যাভিনয় নিয়ন্ত্রণ আইন।

উত্তর সত্য

২.২. ১৯০৫ খ্রিস্টাব্দের ১৬ অক্টোবর বাংলা বিভাজনের পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করা হয়।

উত্তর – সত্য

২.৩ পাঞ্জাবে লালা লাজপত রাই-এর নেতৃত্বে শিবাজি উৎসব চালু হয়।

উত্তর মিথ্যা

৩. সংক্ষেপে উত্তর দাও (৩০-৪০টি শব্দ):

৩.১. অর্থনৈতিক জাতীয়তাবাদ কী?

উত্তর – ব্রিটিশ শোষন, সম্পদের বহির্গমন অবশিল্পায়ন প্রভৃতি একাধিক কারণে ভারতের অর্থনৈতিক অবস্থা বেহাল হয়ে যায়। এই পরিস্থিতি দাঁড়িয়ে, দাদাভাই নৌরজি,মহাদেব গোবিন্দ দত্তের মতো ভারতবর্ষের জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের একাধিক নেতা ভারতের অর্থনৈতিক অবস্থাকে ধ্বংস করার জন্য ব্রিটিশ সরকারকে নানা ভাবে দায়ী করতে থাকেন। তারা ভারতীয় অর্থনীতির ধ্বংসসাধনে ব্রিটিশ সরকারের ভূমিকা নিয়ে প্রকাশ্যে সমালোচনা এবং প্রতিবাদ শুরু করেন। এই অর্থনৈতিক জাতীয়তাবাদ নামে পরিচিত।

Class 8 Model Activity Task History Part 6

অষ্টম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় উত্তর দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন

অষ্টম শ্রেনীর সমস্ত বিষয়

[ninja_tables id=”4404″]

দশম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4297″]

৩.২. ইলবার্ট বিলকে নিয়ে কেন বিতর্কের সূচনা হয়েছিল?

উত্তর 

 “কোন ভারতীয় বিচারকের ইউরোপীয়দের বিচার করার অধিকার ছিলনা। গভর্নর জেনারেল লর্ড রিপনের আইনসভার সদস্য সি. পি. ইলবার্ট বিচারবিভাগীয় ক্ষেত্রে এই অসাম্য দূর করার চেষ্টা করেন। তার প্রস্তাবিত একটি বিলে ভারতীয় বিচারকদের ইউরোপীয়দের বিচার করার অধিকার দেওয়া হয়। এই বিল “ইলবার্ট বিল” নামে পরিচিত ছিল। এই বিল কে কেন্দ্র করে বিতর্কের সূচনা হওয়ার কারণ :

A) ইউরোপীয় হয়ে ভারতীয় বিচারকের বিচার মেনে নেওয়ার মতো মানসিকতা ইউরোপীয় তথা ব্রিটিশদের ছিল না। তাই তারা এই বিলের প্রতিবাদে সংগঠিতভাবে বিদ্রোহ ঘোষণা করে। এবং তাদের এই আন্দোলনের ফল স্বরূপ এই বিল প্রত্যাহার করা হয়।

B) অপরদিকে এই বিল প্রত্যাহার হলে ভারত সভার উদ্যোগে ভারতীয়রা আন্দোলন শুরু করে।

উপরিউক্ত কারণ দুটির জন্যই ইলবার্ট বিল বিতর্ক এর সূচনা হয়েছিল

Class 8 Model Activity Task History Part 6

৪. নিজের ভাষায় লেখো (১২০-১৬০টি শব্দ) :

বিশ শতকের প্রথম দিকে বাংলায় গড়ে ওঠা বিভিন্ন গুপ্ত সমিতির পরিচয় দাও।

উত্তর –

ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের ইতিহাসে বিশ শতকের প্রথম দিকে বাংলায় গড়ে ওঠা বিভিন্ন গুপ্ত সমিতির অবদান অনস্বীকার্য। এই গুপ্ত সমিতি গুলিতে ছাত্র সমাজের বিশিষ্ট ভূমিকা ছিল। বিপ্লববাদের প্রসারে বাংলাদেশের কয়েকটি গুপ্ত সমিতির অবদান ছিল অপরিসীম। এই সমিতিগুলি বঙ্গভঙ্গ আন্দোলনের আগে এবং পরে গড়ে ওঠে। সমিতি গুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য সমিতি বা দল গুলি হল –– অনুশীলন সমিতি, যুগান্তর দল, বেঙ্গল ভলান্টিয়ার্স, অ্যান্টি সার্কুলার সোসাইটি, ইন্ডিয়ান রিপাবলিকান আর্মি প্রভৃতি। নিম্নে সেই সমস্ত দলগুলির পরিচয় দেওয়া হল –

i) অনুশীলন সমিতি : বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের ‘অনুশীলন তত্ত্ব’ এই বিপ্লবী দলের আদর্শ ছিল। ১৯০২ খ্রিস্টাব্দে সতীশচন্দ্র বসু অনুশীলন সমিতির প্রতিষ্ঠা করেন। বহু ছাত্র এই দলের সদস্য ছিল। এখানে শারীরশিক্ষা ও অস্ত্রশিক্ষা দেওয়া হত।

ii) যুগান্তর দল : ভগিনী নিবেদিতা ও অরবিন্দ ঘোষের উৎসাহে ১৯০৬ খ্রিস্টাব্দে ‘যুগান্তর দল’ প্রতিষ্ঠিত হয়। বারীন্দ্র ঘোষ, ভূপেন্দ্রনাথ দত্ত, হেমচন্দ্র কানুনগো এই দলের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন সদস্যদের শারীরশিক্ষা ও অস্ত্রশিক্ষা দিত। এখানে বোমা তৈরি করার শিক্ষণও সদস্যদের দেওয়া হতো।

iii) বেঙ্গল ভলান্টিয়ার্স : ১৯০৫ খ্রিস্টাব্দে ঢাকায় প্রতিষ্ঠিত মুক্তিসংঘ ১৯২৮ খ্রিস্টাব্দে বেঙ্গল ভলান্টিয়ার্স নামে পরিচিত হয়। এর কার্যাবলি মুক্তিসংঘের সদস্যদের পরিচালনায় পরবর্তীকালে বাংলার বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে পড়ে।

iv) অ্যান্টি-সার্কুলার সোসাইটি: স্বদেশি আন্দোলনের সময় স্কুলছুট ছাত্রদের সাহায্যের জন্য এই সমিতি প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯০৫ খ্রিস্টাব্দে। এর প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন শচীন্দ্রপ্রসাদ বসু। ‘ডিফেন্স অ্যাসোসিয়েশন’ নামে এই সমিতির একটি শাখা ছিল। সেখানে অস্ত্রশিক্ষা দেওয়া হত।

v) ইন্ডিয়ান রিপাবলিকান আর্মি : চট্টগ্রামের এক স্কুলের শিক্ষক ছিলেন সূর্য সেন। তিনি ১৯১৮ খ্রিস্টাব্দে ইন্ডিয়ান রিপাবলিকান আর্মি নামে বিপ্লবী দলটি গঠন করেন। এখানে সদস্যদের অস্ত্র ও বিস্ফোরক তৈরির শিক্ষা দেওয়া হত।

এই সকল গুপ্ত সমিতি গুলি বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে সক্রিয় হয়ে উঠলেও ইংরেজ অত্যাচারে তা সম্পূর্ণ সফল হতে পারেনি। তবে তাদের এই বৈপ্লবিক কাজকর্ম ভারতীয় জাতীয়তাবাদী আন্দোলনকে শক্তি জুগিয়ে ছিল।

পঞ্চম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4296″]

ষষ্ঠ শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4401″]

সপ্তম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4403″]

অষ্টম শ্রেনীর সমস্ত বিষয়

[ninja_tables id=”4404″]

দশম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4297″]

নবম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4432″]

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

FansLike
FollowersFollow
0FollowersFollow
FollowersFollow
SubscribersSubscribe
- Advertisment -

Most Popular

State Wise Govt Jobs In India