Tuesday, September 27, 2022
HomeClass XClass 10 Model Activity Task GeographyClass 10 Model Activity Task Geography Part 6- ভূগোল (দশম শ্রেনীর সমস্ত...

Class 10 Model Activity Task Geography Part 6- ভূগোল (দশম শ্রেনীর সমস্ত বিষয়)

Class 10 Model Activity Task Geography Part 6- ভূগোল (দশম শ্রেনীর সমস্ত বিষয়)

Contents

Model Activity Task

Class 10 (দশম শ্রেনী)

Sub:- Geography (ভূগোল)

Part 6

দশম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4297″]

নবম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4432″]

Class 10 Model Activity Task Geography Part 6
Class 10 Model Activity Task Geography Part 6

১. বিকল্পগুলি থেকে ঠিক উত্তরটি নির্বাচন করে লেখাে:

১.১ আরােহণ প্রক্রিয়ায় সৃষ্ট একটি ভূমিরূপ হলাে—

(ক) গিরিখাত

(খ) রসে মতানে

(গ) বালিয়াড়ি

(ঘ) গৌর

উত্তরঃ (গ) বালিয়াড়ি

১.২ ঠিক জোড়াটি নির্বাচন করাে

(ক) উত্তর-পশ্চিম ভারতের প্রাচীন ভঙ্গিল পর্বত – নীলগিরি

(খ) দক্ষিণ ভারতের পূর্ববাহিনী নদী— নর্মদা

(গ) আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের চিরহরিৎ বৃক্ষ – মেহগনি

(ঘ) উত্তর-পূর্ব ভারত— কৃষ্ণ মৃত্তিকা 

উত্তরঃ (গ) আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের চিরহরিৎ বৃক্ষ – মেহগনি

১.৩ ভারতের রূঢ় বলা হয়-

(ক) জামসেদপুরকে

(খ) দুর্গাপুরকে।

(গ) ভিলাইকে

(ঘ) বােকারােকে

উত্তরঃ (খ) দুর্গাপুরকে

Class 10 Model Activity Task Geography Part 6

২. বাক্যটি সত্য হলে ‘ঠিক’ এবং অসত্য হলে ‘ভুল’ লেখাে:

২.১ নদীখাতে অবঘর্ষ প্রক্রিয়ায় সৃষ্ট গর্তগুলি হলাে মন্থকূপ।

উত্তরঃ ঠিক

২.২ ভারতের উপকূল অঞ্চলে দিনেরবেলা স্থলবায়ু প্রবাহিত হয়।

উত্তরঃ ভুল

২.৩ শুষ্ক ও উষ্ণ আবহাওয়া চা চাষের পক্ষে আদর্শ।

উত্তরঃ ভুল

 

পঞ্চম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4296″]

ষষ্ঠ শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4401″]

সপ্তম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4403″]

Class 10 Model Activity Task Geography Part 6

৩. সংক্ষিপ্ত উত্তর দাও:

৩.১ ) ‘ অক্ষাংশভেদে হিমরেখার উচ্চতা ভিন্ন হয় ।’ – ভৌগোলিক কারণ ব্যাখ্যা করো । 

উত্তরঃ

কোনাে স্থানে হিমরেখার উচ্চতা নির্ভর করে অক্ষাংশের ভিত্তিতে, অবস্থান, ভূমির উচ্চতা, ঋতুপরিবর্তন প্রভৃতির ওপর। তাছাড়া আমরা জানি অক্ষাংশের মান বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে উষ্ণতা কমতে থাকে ফলে হিমরেখার উচ্চতাও কমে। নিরক্ষরেখা থেকে ক্রমশ উত্তরে ও দক্ষিণে যেহেতু উষ্ণতা কমতে থাকে তাই হিমরেখার অবস্থানের উচ্চতাও কমতে থাকে। শীতকালে উষ্ণতা কমে যায় বলে হিমরেখা পর্বতের নিম্নাংশে এবং গ্রীষ্মকালে উষ্ণতা বেড়ে যায় বলে পর্বতের উর্ধ্বাংশে অবস্থান করে। তাই দেখা যায় হিমরেখা, নিরক্ষীয় অঞ্চলে গড়ে ৫৫০০ মিটার, হিমালয় পর্বতে ৪৫০০ মিটার, আল্পস পর্বতে ২৮০০ মিটার উচ্চতায় অবস্থান করে।

৩.২ হিমালয় পর্বতমালা কীভাবে ভারতীয় জলবায়ুকে নিয়ন্ত্রণ করে?

উত্তরঃ ভারতের উত্তর দিকে বিশালাকার প্রাচীরের মতো দন্ডায়মান হিমালয় পর্বত আমাদের দেশের জলবায়ুকে নানাভাবে প্রভাবিত করে–

(i) তীব্র শীতের হাত থেকে রক্ষা : হিমালয় পর্বত সাইবেরিয়া থেকে আগত অতি শীতল ও শুষ্ক মহাদেশীয় মেরু বায়ুপ্রবাহকে ভারতে প্রবেশ করতে বাধা প্রদান করে। এই কারনে দক্ষিণ এশিয়া একই অক্ষাংশে অবস্থিত অন্যান্য মহাদেশের তুলনায় শীতকালে অধিক উষ্ণ হয়।

(ii) বৃষ্টিপাত : হিমালয় পর্বত দক্ষিণের সমুদ্র থেকে আগত আর্দ্র দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ুকে প্রাচীরের মতাে বাধাপ্রদান করে। এরফলে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি,বায়ু পর্বতের ঢাল বরাবর ওপরে ওঠে। এরপর ওই বায়ু শীতল ও ঘনীভূত হয়ে উত্তর ভারতে ব্যাপক বৃষ্টিপাত ঘটায়।

(iii ) মরু জলবায়ু সৃষ্টি: আবহবিজ্ঞানীদের মতে মধ্য এশিয়ার গােবি ও তাকলামাকান মরুভূমি সৃষ্টির ক্ষেত্রে হিমালয় পর্বতের যথেষ্ট অবদান রয়েছে।ভারতের জলবায়ুর ওপর এই দুই মরুভূমির প্রভাব কমবেশি অনুভূত হয়।

(iv) পশ্চিমী ঝঞ্জার ব্যাপকতা হ্রাস: হিমালয় পর্বতের জন্য শীতকালীন পশ্চিমী ঝঞার প্রভাব কেবলমাত্র উওর- পশ্চিম ভারতেই সীমাবদ্ধ থাকে। এই প্রসঙ্গে উল্লেখ করা যায় যে, উত্তর-পূর্ব ভারতে হিমালয় ও পূর্বাঞ্চলের পর্বত গুলির মধ্যে যে সামান্য ফাঁক রয়েছে সেই ফাঁক দিয়ে অতি শীতল উত্তর-পূর্ব মৌসুমি বায়ু ব্ৰহ্মপুত্ৰ উপত্যকায় প্রবেশ করে সমগ্র উত্তর-পূর্ব ভারতের উষ্ণতার হ্রাস ঘটায়। 

৪. ভারতীয় জনজীবনে নগরায়ণের নেতিবাচক প্রভাবগুলি উল্লেখ করো। (৪)

উত্তর- যে কোন সমাজ ব্যবস্থায় গ্রাম্য অবস্থা থেকে ধীরে ধীরে শহর অবস্থায় পরিণত হওয়ার প্রক্রিয়াকে নগরায়ন বলে।

পৃথিবীর অন্যান্য উন্নয়নশীল দেশ গুলির মতো ভারতেও নগরায়ন আর্থ সামাজিক উন্নতিতে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করলেও এর কিছু নেতিবাচক প্রভাব রয়েছে।

i) অপরিকল্পিত নগরায়ণ : ভারতে নগরায়ণের সবচেয়ে বৃহৎ সমস্যা হলো ভারতে কোনো পরিকল্পনা ছাড়াই নগরায়ণের বিকাশ হচ্ছে। মোট পৌরবাসীর প্রায় 70% প্রথম শ্রেণির শহরে বাস করে। যার মধ্যে 42.6% মানুষ 53টি মিলিয়ন সিটিতে বাস করে, ফলে শহরে রাস্তাঘাট প্রত্যহ যানজট সমস্যা নেয়।  সরকারি ও বেসরকারি কর্মসংস্থান অন্যান্য ক্ষেত্র সব শহরেই অবস্থিত। ফলে মানুষকে কর্মের জন্য শহরে ভিড় বাড়াতে হয়। যেমন—মুম্বাই, কলকাতা, ব্যাঙ্গালুরু।

ii) বাসস্থানের অভাব – ভারতীয় বড়ো বড়ো নগর গুলিতে জনসংখ্যার চাপ এতোটাই বেশি যে সকল মানুষের জন্য বাসস্থান বা আবাসস্থলের অভাব পরিলক্ষিত হয়। যার ফলস্বরূপ বস্তির উদ্ভব দেখা যায়। মুম্বাই শহরে অবস্থিত ধারাবি বস্তী ভারত তথা পৃথিবীর বৃহত্তম বস্তি।

iii) জলনিকাশি ব্যবস্থা : পূর্ব ভারতের শহর সংলগ্ন নদীগুলিতেই পৌর আবর্জনা নিক্ষেপ করা হত। কিন্তু পরিবেশ সচেতনতা বাড়ায় তা সম্পূর্ণভাবে বন্ধ হয়েছে। বেশিরভাগ শহরে বিকল্প ব্যবস্থা গড়ে না ওঠায় সমস্যায় ভুগছে।

iv) বিদ্যুৎ সরবরাহ জনিত সমস্যা : শিল্প, পরিবহন, বানিজ্য, সামাজিক কাজে তাই নগর বা শহরাঞ্চলে প্রচুর বিদ্যুতের প্রয়োজন হয় কিন্তু ভারতের প্রায় প্রতিটি শহরে চাহিদার তুলনায় বিদ্যুতের জোগানে ঘাটতি দেখা যায়।

v) শহরমুখী প্রবণতা : সাম্প্রতিককালে গ্রাম থেকে দলে দলে মানুষ কাজ, সুযোগ-সুবিধা, শিক্ষাসহ আরও উন্নত জীবনযাপনের আশায় শহরে আসছে। 2011 খ্রিস্টাব্দের জনগণনায় দেখা গেছে, ভারতে এই প্রথম গ্রামীণ মোট জনসংখ্যার বৃদ্ধির চেয়ে শহরে মোট জনসংখ্যা বেড়েছে 32.12%।

অন্যান্য মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক ঃ 

 

পঞ্চম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4296″]

ষষ্ঠ শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4401″]

সপ্তম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4403″]

অষ্টম শ্রেনীর সমস্ত বিষয়

[ninja_tables id=”4404″]

দশম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4297″]

নবম শ্রেনীর সমস্ত বিষয় 

[ninja_tables id=”4432″]

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

FansLike
FollowersFollow
0FollowersFollow
FollowersFollow
SubscribersSubscribe
- Advertisment -

Most Popular

State Wise Govt Jobs In India